অস্ট্রেলিয়ার পর শ্রীলঙ্কা বধ, স্বপ্নের সিঁড়িতে বাংলাদেশ

প্রকাশ: ১ বছর আগে

প্রথম বার মাঠে গড়িয়েছে নারী অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ। আর তাতেই বাজিমাত বাংলাদেশের। উদ্বোধনী ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ইতিহাস। এবার তাদের শিকার শ্রীলঙ্কা। দক্ষিণ আফ্রিকার বেনোনিতে বাংলার মেয়েরা আজ জিতেছে ১০ রানে।

 

বেনোনির উইলোমুরে পার্কে আগে ব্যাট করা বাংলাদেশ পেয়েছে বড় সংগ্রহ। আফিয়া প্রত্যাশা ও স্বর্না আক্তারের ফিফটিতে ২ উইকেটে স্কোরবোর্ডে ১৬৫।

 

প্রত্যাশা ৪৩ বলে ৫৩ করলেও ২৮ বলে ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন স্বর্না। দিলারা আক্তার অপরাজিত ছিলেন ২৭ বলে ৩৬ রানে।

 

জবাবে ভিসমি গুনারত্নে ও ডেউমি ভিহাঙ্গার জোড়া ফিফটিতেও পরাজিত দলে শ্রীলঙ্কা। ৪ উইকেটে ১৫৫ রনের বেশি করতে পারেনি তারা। ৫৪ বলে ৬১ রানে অপরাজিত অধিনায়ক গুনারত্নে, ৫৫ রান করে আউট ভিহাঙ্গা।

 

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শুরুতেই বিপাকে শ্রীলঙ্কা। দুই ওপেনার নেথমি সেনারত্নে (০) ও সুমুধু নিসানশালা (৩) আউট হন দুই অঙ্ক ছোঁয়ার আগেই।

 

২৪ রানে ২ উইকেট হারানো শ্রীলঙ্কাকে টেনে নেয় গুনারত্নে-ভিহাঙ্গা। দুজনে মিলে গড়েন ৯৬ রানের জুটি। তবে রান তাড়া বিবেচনায় খুব একটা স্বস্তিতে ছিল না লঙ্কানরা।

 

৪৪ বলে ৭ চার ২ ছক্কায় ৫৫ রান করা ভিহাঙ্গাকে আউট করে জুটি ভাঙেন মারুফা আক্তার। এরপর ফিফটি তুলে নেন গুনারত্নেও, কিন্তু শেষ পর্যন্ত লাভ হয়নি তাতেও। ৫৬ বলে ৮ চার ১ ছক্কায় অপরাজিত ৬১ রানের ইনিংসটি সাজান তিনি। ৩ বলে ৩ চারে ১২ রানে অপরাজিত ছিলেন ডুয়ালাঙ্গা দিসেনায়েকে।

 

লঙ্কানদের ১৫৫ রানে আটকানোর পথে মারুফা নেন সর্বোচ্চ ২ উইকেট। ঈকটি করে ভাগাভাগি করেন দিশা বিশ্বাস, দিপা খাতুন, রিয়া আক্তার শিখা, ও রানি সাহা।

 

আগে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত উদ্বোধনী জুটি বাংলাদেশের। ওপেনার প্রত্যাশা ও রানি সাহার ১১.১ ওভার স্থায়ী জুটিতে আসে ৭৫ রান। রানিকে এক প্রান্তে রেখে ঝড় দারুণ আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন প্রত্যাশা।

 

জুটিতে ৫৩ রানই ডানহাতি এই ব্যাটারের। ডুয়লাঙ্গা ডিসেনায়েকের করা ১১ তম ওভারের প্রথম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ফিফটি তুলে নেন প্রত্যাশা। যে পথে তার লেগেছে ৪১ বল।

 

ফিফটির পর অবশ্য বেশিক্ষণ টিকেননি। ১২তম ওভারে রাশমি নেত্রাঞ্জলির বলে আউট হন আফিয়া। ৪৩ বলে ৫ চার ৩ ছক্কায় সাজান ৫৩ রানের ইনিংসটি। একই ওভারে রান আউট হন রানি সাহাও (২৪ বলে ১৪)।

 

৪ রানের ব্যবধানে ২ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

 

প্রত্যাশা-রানির বিদায়ের পর ক্রিজে এসে সাবলীল ব্যাটিং উপহার দেন আগের ম্যাচে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতা দিলারা আক্তার। অন্য প্রান্তে আরও আক্রমণাত্মক স্বর্না আক্তার।

 

১৭তম ওভারে দিলারার ব্যাটে টানা দুই চার। পরের ওভারের দ্বিতীয় বলে স্বর্নার ব্যাটে আরো এক ছক্কা। দুজনে মিলে ১৯তম ওভারেই পার করান দলীয় ১৫০ রান।

 

শেষ পর্যন্ত ইনিংসের শেষ বলে ফিফটি ছুঁয়েছেন স্বর্না। ২৮ বলে ৩ চার ২ ছক্কায় সাজান ৫০ রানের নিংসটি। ২৭ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ৩৬ রানে অপরাজিত দিলারা। দুজনে অবিচ্ছেদ্য ছিলেন ৮৬ রানের জুটিতে।