ঈদের নামাজ ও প্রীতি ভোজের মধ্য দিয়ে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের ঈদ – উল – ফিতর ২০২৩ উদযাপন

News Editor
প্রকাশ: ১ বছর আগে

মোঃ জিয়াউর রহমান কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ

শনিবার (২২ এপ্রিল, ২০২৩) দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর ঈদ মুসলিম বিশ্বে অনাবিল খুশী ও আনন্দ নিয়ে আসে। ঈদ – উল – ফিতর উদযাপনের দিনে পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া মোঃ খাইরুল আলম জেলা পুলিশ কুষ্টিয়ার পক্ষ থেকে দেশ ও প্রবাসের সবাইকে ঈদ – উল – ফিতর ২০২৩ এর শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক জানিয়েছেন। কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ মাহে রমজানের দিনগুলোতে অবিরতভাবে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিয়ে গেছে। পবিত্র ঈদ উল ফিতরের দিন কুষ্টিয়া জেলার সকল ঈদ জামাতের নিরাপত্তা প্রদান করে। এ ছাড়াও কুষ্টিয়া জেলার পুলিশ সদস্যগণ পুলিশ লাইন্স, কুষ্টিয়া মডেল থানা, কুমারখালী থানা, খোকসা থানা, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা, মিরপুর থানা, ভেড়ামারা থানা, দৌলতপুর থানা সহ কুষ্টিয়া জেলার সকল ফাঁড়ি, পুলিশ ক্যাম্প, তদন্ত কেন্দ্র তথা সকল পুলিশ ইউনিটে পৃথক ভাবে নিজেদের ঈদের নামাজ সম্পন্ন করেন এবং পুলিশ বাহিনীর ঐতিহ্যগত পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে ফোর্সের জন্য উন্নত মানের বড় খানা “প্রীতিভোজ” এর মাধ্যমে ঈদ -উল- ফিতর – ২০২৩ উদযাপন করা হয়। পুলিশ লাইন্স এসএএফ মেসে পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া মোঃ খাইরুল আলম প্রধান অতিথি ও জেলা প্রশাসক কুষ্টিয়া মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উক্ত বড় খানা “প্রীতিভোজ” অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহন করেন। পুলিশ সুপার এ সময় কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সদদের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ পুলিশের আইজপি মহোদয়ের ঈদ শুভেচছা পৌঁছে দেন। এ ছাড়াও কুষ্টিয়া পুনাক সভানেত্রী জনাব দিলরুবা আলম পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ কর্তৃক আয়োজিত প্রীতি ভোজে অংশ গ্রহণ করেন।

ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের দুটি বড় ধর্মীয় ‍উৎসবের মধ্যে পবিত্র ঈদ উল ফিতর একটি। রমযান মাসে পুরো মাস ব্যাপী সিয়াম পালন শেষে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা; অতঃপর মুসল্লীগণ কোন উম্মুক্ত স্থানে স্থায়ী/অস্থায়ী ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করে থাকে। পুলিশ লাইন্স জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত ঈদের জামাতে নামাজ আদায় করেন কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের এসপি মোঃ খাইরুল আলমসহ জেলা পুলিশের সকল পদমর্যাদার অফিসার – ফোর্স এবং স্থানীয় জন সাধারণ। ঈদের নামাজের পর মুসল্লিগণ সমবেতভাবে মোনাজাত করে মহান আল্লাহর নিকট সকল মুসলিম উম্মার মু্ক্তিলাভের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং নামাজের আনুষ্ঠানিকতা শেষে উপস্থিত মুসল্লিগণ একে অন্যের সাথে কোলাকুলি করে ঈদের বিশেষ শুভেচ্ছাসূচক “ঈদ মুবারাক” সম্ভাষণ ব্যক্ত করেন। অত:পর দুপুর ২ টায় পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে পুলিশ সুপারের পক্ষ হতে জেলা পুলিশের সকল সদস্যদের জন্য দুপুরে অভিন্ন উন্নত মানের খাবার ফোর্সের বড় খানা “প্রীতিভোজ” অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করেন।

এ সময় প্রীতি ভোজে আরো উপস্থিত ছিলেন ড. এস এম ফরহাদ হোসেন, পুলিশ সুপার, ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টার, কুষ্টিয়া, মোঃ শহীদ আবু সরোয়ার, পুলিশ সুপার, পিবিআই, মোঃ আবু রাসেল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল, কুষ্টিয়া, মোঃ আব্দুল খালেক, সহকারি পুলিশ সুপার (মিরপুর সার্কেল), কুষ্টিয়া, মো: ফয়সাল হোসেন, ডিআইও ১, জেলা বিশেষ শাখা, মো: শাহাদাত হোসেন, অফিসার ইনচার্জ, কুষ্টিয়া মডেল থানা, মো: হাফিজুর রহমান, আরওআই, রির্জাভ অফিস, শ্রী রাধেশ চন্দ্র সেন, আরআই, পুলিশ লাইন্স কুষ্টিয়াসহ জেলা পুলিশের সকল পদমর্যাদার অফিসার ও ফোর্সগণ প্রীতিভোজে অংশগ্রহণ করেন।