কুষ্টিয়ার শিলাইদহ কুঠিবাড়িতে সাজ সাজ রব

News Editor
প্রকাশ: ১ বছর আগে

মোঃ জিয়াউর রহমান কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ

আজ সোমবার ২৫ বৈশাখ (৮মে) বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬২তম জন্মবার্ষিকী। তাইতো কবির স্মৃতিধন্য কুষ্টিয়ার শিলাইদহের কুঠিবাড়িতে এখন সাজ সাজ রব। থাকছে ৩দিন ব্যাপী নানা আয়োজন। কবিগুরুর জন্মোৎসব উপলক্ষ্যে কুঠিবাড়ির আঙিনার পাশে বসছে গ্রামীণ মেলাও। তবে কবি ভক্ত ও দর্শনার্থীদের দাবী কবির স্মৃতিধন্য শিলাইদহের কুঠিবাড়িতে দিবসটি প্রতিবছরই জাতীয়ভাবে উদযাপন করা হোক।
কুষ্টিয়া শহর থেকে মাত্র ১৬কিলোমিটার দূরে অবস্থিত শিলাইদহ কুঠিবাড়ি।পদ্মা নদীর তীরবর্তী ছায়াশীতল ও নিরিবিল পরিবেশ থাকার কারনে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন তাঁর স্মৃতিধন্য কুমারখালীর শিলাইদহের এই কুঠিবাড়িতে। এখানে বসেই তিনি রচনা করেছেন কালজয়ী অনেক কাব্যগ্রন্থ, ছোট গল্প, নাটক ও উপন্যাস। তাইতো রবীন্দ্র সাহিত্যে শিলাইদহের গুরুত্ব অপরিসীম। যার কারণে শুধু জন্মোৎসব অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে নয় সবসময়ই কবির স্মৃতি হাতড়াতে দেশ বিদেশের নানা প্রাপ্ত থেকে ছুটে আসেন কবি ভক্ত ও দর্শনার্থীরা।
কবির স্মৃতিবিজড়িত কুঠিবাড়িতে বছর জুড়ে দর্শনার্থীদের ভীড় লেগে থাকলেও ২৫ বৈশাখ আসলেই কুঠিবাড়িত পা ফেলার জায়গা থাকেনা। কবি, সাহিত্যিক ও কবি ভক্তদের বিচরণে পরিপূর্ণতা পাই কবির জন্মোৎসব। তবে অতৃপ্তি ও আকাঙ্খা থেকেই যায়, যখন কবির স্মৃতিধন্য কুঠিবাড়িতে জন্মোৎসবের আয়োজন জাতীয়ভাবে না হওয়ায়।
সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের সহায়তায় ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ৩দিন ব্যাপী কবিগুরুর জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠান সফল করতে ইতোমধ্যে সবধরণের প্রস্তুতিও সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুঠিবাড়ির কাস্টোডিয়ান মো. আল আমিন ও কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিতান কুমার মন্ডল।
বাঙ্গালী জাতিকে বিশ্বদরবারে নতুন করে যিনি পরিচয় করিয়েছেন তিনিই বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তাঁর বিস্তৃত জ্ঞান ভান্ডার নতুন প্রজন্মসহ সবার মাঝে বিস্তারলাভ করুন এমন প্রত্যাশা হোক কবি জন্মদিনে।
উল্লেখ্য, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ২৫, ২৬ ও ২৭ বৈশাখ (৮, ৯ ও ১০ মে) কবির স্মৃতি বিজড়িত কুষ্টিয়ার শিলাইদহের কুঠিবাড়িতে আয়োজন করা হয়েছে ৩দিনের অনুষ্ঠান। কুঠিবাড়ি চত্বরে মুক্তমঞ্চের অনুষ্ঠানে থাকবে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথের সাহিত্যকর্ম নিয়ে আলোচনা,

গান, কবিতা আবৃত্তি, নাচ ও নাটক।
সোমবার সকাল ১০টায় ৩দিন ব্যাপী এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধন পর্বে থাকবে কুষ্টিয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমির পরিবেশনা।