রাজশাহীর শ্রেষ্ঠ ইউ এন ও সোহেল রানার মুখ্য ভূমিকা

News Editor
প্রকাশ: ১ বছর আগে

স্টাফ রিপোর্টার : দূর্গাপুর বাংলাদেশের একটি অন্যতম উপজেলা। এখানে অনেক জ্ঞানী গুনী লোক বাস করেন। এখনও এ উপজেলার অধিকাংশ মানুষের জীবনমান উন্নয়ন প্রয়োজন। তথ্য প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে জনগনের দোরগোড়ায় সরকারী বেসরকারী সেবা দ্রুত পৌছে দেওয়ার ক্ষেত্রে দূর্গাপুর উপজেলা অগ্রনী ভূমিকা পালনে যথেষ্ট অবদান রাখছেন । দূর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউ এন ও সোহেল রানা ।সমন্বিত উদ্দোগের মাধ্যমে একটি সুষ্ঠু, সুন্দর, সন্ত্রাসমুক্ত, উন্নয়নমুখী আলোকিত উপজেলা গড়াই আমাদের সকলের লক্ষ্য। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল রানা তারই ধারাবাহিকতায় (১) বিবদমান পক্ষের মধ্যে শান্তি শৃঙ্খলা রাখা . । [২]মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার নিয়ন্ত্রন।(৩) এসিড অপব্যবহার রোধ।. (৪) নারী ও শিশু নির্যাতন রোধ । বাল্য বিবাহ রোধ . ।( ৫ )যৌতুক নিরোধ জঙ্গিবাদ দমন।( ৬). নারী ও শিশু পাচার রোধ (৭) চোরাচালান প্রতিরোধ( ৮) । হন্ডি ব্যবসা নিয়ন্ত্রন।( ৯ ) জাল নোট প্রচলন রোধ [১০] ☪︎ যৌন হয়রানী(ইভটিজিং) প্রতিরোধ ( ১১)উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির দায়িত্ব পালন।১২ ][অপরাধ প্রবনতা হ্রাসে কার্যকর উদ্যেগ গ্রহণ {১৩} দরিদ্র ও ভূমিহীনদের জন্য সরকারের পূনর্বাসন কর্মসূচী যেমন আশ্রয়ন, আবাসন, আদর্শ গ্রাম, গুচ্ছগ্রাম এবং জলবায়ু দূর্গত মানুষের পূনর্বাসন প্রকল্পের বাস্তবায়ন ও তদারকি। ১৫]খাদ্য শস্য সংগ্রহ কার্যক্রম বাস্তবায়ন। {১৬]ভেজাল খাদ্য প্রতিরোধে মোবাইল কোট পরিচালনা। [১৭]. ও প্রাকৃতিক পরিবেশ বজায় রক্ষার্থে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ ব্যাপক হারে মুখ্য অবদান রাখায় ।

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী (ইউএনও) সোহেল রানা জেলার শ্রেষ্ঠ ইউএনও নির্বাচিত হয়েছেন। জেলার জাতীয় শিক্ষা পদক প্রদান উপলক্ষে গত ২৯ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ক্যাটাগরিতে রাজশাহী জেলায় শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। রাজশাহী জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক-শিক্ষিকা, বিদ্যালয়, ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, কর্মকর্তা ও কর্মচারী বাছাই কমিটি যাচাই-বাছাই শেষে দুর্গাপুর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহেল রানাকে জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) হিসেবে স্বীকৃতি দেয় । এ ছাড়া তিনি দূর্গাপুর সিংগা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কিশোর-কিশোরীদের ক্লাবের সঠিক নেতৃত্ব গঠন, স্বাস্হ্যবিধি, আচরণে উন্নয়ন এবং সঠিক পুষ্টি, পানি ও স্যানিটেশন ব্যবহার সেই সাথে কিশোর-কিশোরী ক্লাব শক্তিশালী করনে বিষয়ক মৌলিক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেছেন। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি, নেতৃত্ব গঠন, আচরণ উন্নয়ন এবং কিশোর কিশোরী ক্লাব গঠন সম্পর্কিত জ্ঞান অর্জন হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তার উদ্যোগ ও তৎপরতায় এ উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থার ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে তা ( দূর্গাপুর বাসীর জন্য ভুলবার মতো না মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা)