জামালপুর সদর উপজেলা নির্বাচনে ভোটের প্রচারে এগিয়ে বিজন কুমার চন্দ

এম.এ.রফিক, জামালপুর:
প্রকাশ: ৪ সপ্তাহ আগে

জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৮ই মে। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে প্রার্থীরা। এরই ধারাবাহিকতায় আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়েছেন জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিজন কুমার চন্দ। তার প্রতীক মোটরসাইকেল। ইতিমধ্যে সদর উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় তার মোটরসাইকেল মার্কার প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে রয়েছে। সাধারণ মানুষের মাঝেও দেখা দিয়েছে বিজন কুমার চন্দের জনপ্রিয়তা। বিজন কুমার চন্দ তাঁর পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত সৎ ও সময়নিষ্ঠ সদা হাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তাঁর মাঝে কোনো অহংকার নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ সকলের কাছে প্রিয়। কাজ করছেন নৌকার জন্য। সর্বোপরি কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য। এই সফল মানুষটি দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের বিপদ আপদে ছুটে যান। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন। সকল দু:খ দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়। ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতির সাথে আছেন, তিনি ২০০৯ইং সাল থেকে ২০১৪ইং সাল পর্যন্ত সদর উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মেধা,কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবশায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা অর্জনের মধ্য দিয়ে তিনি নিজেকে গড়েছেন পরিশীলিতভাবে এক উজ্জ্বল অধ্যায়ে। এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তিনি সব সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সর্বোপরি গরীব মেহনতী মানুষের প্রকৃত জনদরদী হিসেবে তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী ছোট বেলা থেকেই একজন সহজ-সরল-সৎ মনের অধিকারী ও মেধাবী মানুষ। আগামী নির্বাচনে সাধারণ মানুষ তাকেই পুনরায় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়। আগামী দিনে বিজন কুমার চন্দ সততা ও কর্মদক্ষতার সাথে উপজেলায় উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অগ্রণী ভ‚মিকা পালন করে উপজেলাকে আধুনিক মডেল হিসেবে গড়ে তুলবেন এমনটাই প্রত্যাশা উপজেলাবাসীসহ সকলের। এ বিষয়ে রশিদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ¦ আছাদুজ্জামান চাঁন বিএসসি বলেন, বিজন কুমার চন্দ শিক্ষানুরাগী একজন ব্যক্তি। তিনি রশিদপুর ইউনিয়নে গড়ে তুলেছেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আগামীতে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান হবেন এটাই আমাদের কামনা। কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম খান সোহেল বলেন, রাজনৈতিক ব্যক্তি হিসেবে তিনি যেমন আমাদের কাছে খুবই প্রিয় ব্যক্তি ঠিক তেমনি সাধারণ মানুষের কাছে তিনি একজন প্রিয় মানুষ। বিপদে-আপদে সবসময় তাকে আমাদের কাছে পাই। আগামী ৮ই মে উপজেলা নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজন কুমার চন্দ জয়লাভ করবে এটাই আমরা আশা করছি।